খা’রাপ, মে’য়েটি তো মিডিয়ায় কাজ করে

খা’রাপ, মে’য়েটি তো মিডিয়ায় কাজ করে
ঘ’টনা ১. শাকিব খান ও শবনম বুবলীর প্রে’ম নিয়ে গুঞ্জন চলছে বেশ কয়েক দিন থেকেই। এমন কী’ শোনা যাচ্ছে মা হতে চলেছেন বুবলী। সে স’ন্তানের বাবা নাকি শাকিব খান- এমনটাও দাবি অনেকের। তবে এই বি’ষয়ে মুখ খুলেছেন শাকিব খান।

শাকিব খান বলেছেন, ‘মিডিয়ার বাইরে আমা’র পছন্দমতো পরহেজগার ও স্বা’মীভক্ত পাত্রী পেলে বিয়ে করব। যে কাজ শেষে বাসায় ফিরলে আমা’র যত্ন নেবে। মা-বাবা এমন পাত্রীর খোঁজ করছেন। পাত্রী পেলেই বিয়ে।’

২. ফারিয়া শাহরিনের একটা ইন্টারভিউর পর বেশ হৈচৈ, তর্কাতর্কি হয়েছে। ইন্টারভিউতে ফারিয়া বলেছেন, তিনি মিডিয়াতে কাজ করতে গিয়ে খা’রাপ প্রস্তাব পান। সেসবে তিনি সম্মত না হওয়ায় তার কাজ করা কমে গেছে। আর যেসব মে’য়ে মিডিয়াতে কাজ নিয়মিত করেন,

তারা এসব বি’ষয়ে আপস করেই কাজ করেন। তিনি আরও বলেছেন, মিডিয়ায় কাজ দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন না। অর্থাৎ এটা তার শখের জায়গা বা না করলেও চলবে ইত্যাদি।

৩. থাইল্যান্ডে নাট’কের শুটিং করে দেশে ফিরছিলেন সাফা কবির। সন্ধ্যায় হযরত শাহ’জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন সাফা কবির। এই মডেল-অ’ভিনেত্রী অ’ভিযোগ করেন, ‘কাস্টমস অ’তিক্রম করার সময় থ আগলে দাঁড়ায় সাদা পোশাকের কয়েকজন নিরাপত্তাকর্মী।

তাঁর স’ঙ্গে থাকা তিনটি লাগেজ তল্লা’শি করতে চায় তারা। সাফা আ’পত্তি জানায়, না’রী নিরাপত্তাকর্মী দিয়ে তল্লা’শি চা’লানোর অনুরোধ করেন। বলেন, এটা আমা’র প্রাইভেসির বি’ষয়। স’ঙ্গে স’ঙ্গে তারা কটূক্তি করে বলে, মিডিয়ার মে’য়ের আবার কিসের প্রাইভেসি! এ নিয়ে প্রায় আধঘণ্টা কথা-কা’টাকাটি। পরে ট্যাক্স চেয়েও হে’নস্থা করা হলো। এসব আবার ভিডিও করেছেন কয়েকজন।’

৪. পিয়া জান্নাতুল তখন খুলনায়। আলোকচিত্রী অ’পূর্ব আবদুল লতিফের পরাম’র্শে কলেজে ভর্তি হওয়ার আগেই তিনি মিস বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় ছবি পাঠিয়েছিলেন। নানা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে সবাইকে অ’বাক করে দিয়ে ‘মিস বাংলাদেশ ২০০৭’ হয়েছিলেন পিয়া। বাবা রাজি নন,

তিনি কনজারভেটিভ। মে’য়ে করবে মিডিয়ায় কাজ! পিয়া কোন বা’ধা মানেননি। বাসা ছেড়ে ঢাকায় পাড়ি জমালেন। বাবাও মেনে নিতে পারেনি মে’য়ের সি’দ্ধান্ত, তিন বছর কথা বলেননি। তখন ব’য়স মাত্র ১৬ বছর।

পিয়া সিড়ি ভেঙ্গে ভেঙ্গে নিজের গন্তব্যে পৌঁছলেন। বর্তমানে পিয়া বাংলাদেশের অন্যতম সেরা মডেল। বিকিনি পড়ে ছবি তুলতেও কুন্ঠাবোধ করেন না। নিজের সাহসের স’ঙ্গে যু’ক্ত হয়েছে স্বা’মীর অনুপ্রেরণা। পিয়া বলেন, ‘আমা’র জামাই (স্বা’মী) প্রত্যেকটি কাজে আমাকে অনুপ্রেরণা দেয়। অনেক কাজ আমি ‘না করতে চাইলেও’ তার পরাম’র্শে করি।

ইনফ্যাক্ট, প্রথমে আমি ক্রিকেট উপস্থাপনাও করতে চাইনি। দ্বিধায় ছিলাম, পারবো কি পারবো না! কিন্তু সেই একমাত্র ব্যক্তি যে আমাকে বলেছিল, তুমি পারবা। ইউ শুড ডু ইট। মূ’লত জামাইয়ের অনুপ্রেরণায় ক্রিকেট উপস্থাপনায় যাই। অনেকদিন যদি কাজ না করি, শ্বাশুড়ি নিজেই আমাকে বলেন, তোমাকে টিভিতে দেখা যাচ্ছেনা কেন? কি কাজ আছে তোমা’র বলো তো দেখবো।

পিয়া বলেন, আমা’র শ্বশুরবাড়ির মানুষরা খুব ব্র’ড মাইন্ডডেট। আর আমা’র বাবার বাসার দিকে আগে কনজারভেটিভ ছিল, এখন নেই। মিডিয়ায় কাজ শুরুর পর তিন বছর বাবা আমা’র স’ঙ্গে কথা বলেননি।

পরিচালক অনন্য মামুন একবার ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন, ‘কিছুদিন আগে বোন বিয়ে দিতে গিয়ে বুঝলাম মিডিয়ায় কাজ করে কত অন্যায় করেছি। মে’য়ে বড় হচ্ছে, ওকে নিয়ে টেনশনে আছি বিয়ে দিতে পারি কিনা’

মিডিয়ার মে’য়ে মানেই খা’রাপ তাই না? একটা শ্রেনীর মানুষের কাছে এটাই প্রচলিত। সারাদিন নাট’ক সিনেমা দেখতে পারবে, বড় বড় বিলবোর্ডের দিকে চোখ বড় বড় করে তাকাতে পারবে, কিন্তু মিডিয়ার মে’য়ে খা’রাপ। ঘ’টনাগুলোর স’ঙ্গেই আমাদের বর্তমান সময়ের চিত্র ফুটে উঠেছে।

বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান। ২০ বছরের বেশি সময় ধরে মিডিয়ায় কাজ করছেন। সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির এই নায়ক একবার নায়িকা বিয়েও করেছিলেন। কিন্তু এখন তিনি বলে বেড়াচ্ছেন মিডিয়ার মে’য়ে বিয়ে করবেন না। কারণ তার ধার্মিক লাগবে। মিডিয়ার মে’য়ে মানেই কি তাহলে ধার্মিক না? মিডিয়ার মে’য়ে কি স্বা’মীর যত্ন নেয় না? এটাই কি তিনি ইঙ্গিত করতে চেয়েছেন? বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নায়কের যদি এমন ধারণা হয় তাহলে সাধারণ মানুষের আর কি বা হবে।

ফারিয়া শাহরিন বুঝিয়েছেন, মিডিয়ায় খা’রাপ প্রস্তাব না গ্রহণ করলে তার টিকে থাকা যায় না। মিডিয়াতে যেমন উচ্চশিক্ষিত আছেন তেমনি উচ্চঘরের মানুষেরও অভাব নেই। এখানে আসলেই যে খা’রাপ হতে হয় এমন কথা নেই। সবচেয়ে বড় কথা এমন ঘ’টনা কোন পেশায় ঘটে না? সাংবাদিক, চিকিৎসক, শিক্ষিকা- কোন পেশাতে মে’য়েরা এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয় না? তবে ফারিয়া যে মি’থ্যে কথা বলেছেন সেটাও না। এমনটা যে ঘটে না সেটা অস্বীকার করার মতো না।

মিডিয়ার মে’য়ে মানেই খা’রাপ তাই না? একটা শ্রেনীর মানুষের কাছে এটাই প্রচলিত। সারাদিন নাট’ক সিনেমা দেখতে পারবে, বড় বড় বিলবোর্ডের দিকে চোখ বড় বড় করে তাকাতে পারবে, কিন্তু মিডিয়ার মে’য়ে খা’রাপ। ঘ’টনাগুলোর স’ঙ্গেই আমাদের বর্তমান সময়ের চিত্র ফুটে উঠেছে।

বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান। ২০ বছরের বেশি সময় ধরে মিডিয়ায় কাজ করছেন। সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির এই নায়ক একবার নায়িকা বিয়েও করেছিলেন। কিন্তু এখন তিনি বলে বেড়াচ্ছেন মিডিয়ার মে’য়ে বিয়ে করবেন না। কারণ তার ধার্মিক লাগবে। মিডিয়ার মে’য়ে মানেই কি তাহলে ধার্মিক না? মিডিয়ার মে’য়ে কি স্বা’মীর যত্ন নেয় না? এটাই কি তিনি ইঙ্গিত করতে চেয়েছেন? বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নায়কের যদি এমন ধারণা হয় তাহলে সাধারণ মানুষের আর কি বা হবে।

ফারিয়া শাহরিন বুঝিয়েছেন, মিডিয়ায় খা’রাপ প্রস্তাব না গ্রহণ করলে তার টিকে থাকা যায় না। মিডিয়াতে যেমন উচ্চশিক্ষিত আছেন তেমনি উচ্চঘরের মানুষেরও অভাব নেই। এখানে আসলেই যে খা’রাপ হতে হয় এমন কথা নেই। সবচেয়ে বড় কথা এমন ঘ’টনা কোন পেশায় ঘটে না? সাংবাদিক, চিকিৎসক, শিক্ষিকা- কোন পেশাতে মে’য়েরা এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয় না? তবে ফারিয়া যে মি’থ্যে কথা বলেছেন সেটাও না। এমনটা যে ঘটে না সেটা অস্বীকার করার মতো না।

এই ‘খা’রাপ খা’রাপ’ বলে দুয়োধ্বনি তোলার ফলেই সাফা কবিরের মতো ঘ’টনা ঘটে। কখনো সম্মুখে ঘটে। ফেসবুকের দিকে তাকালে তো কথাই নেই, সেখানে নায়িকা- মডেল- অ’ভিনেত্রীদের প্রফাইল ঘাটলেই দেখতে পারবেন একশ্রেণীর মানুষ কিভাবে কু’রুচিপূর্ণ মন্তব্য করতে থাকে। জ্ঞান দেওয়া তো তাদের নিত্তনৈম’ত্তিক কাজ। অথচ তারা ফেসবুকে তাদের ফলো করে বলেই এসব দেখতে পায়।

তবে সবাই এই কাতারে না। পিয়া জান্নাতুলের মতো অনেক মে’য়ে অজানা গন্তব্যে পাড়ি জমায় নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য। সেই স্বপ্নকে স’ঙ্গও দেয় তার স্বা’মী ফারুকের মতো মানুষও। সেদিন শাহরিয়ার নাজিম জয়ের এক শোতে ফারুক যেভাবে তার স্ত্রী’র সৌন্দর্যের কথা বলছিলেন, সত্যি মুগ্ধ হওয়ার মতো। পিয়ার শ্বশুর-শাশুড়ি- স্বা’মী তিনজনেই উচ্চশিক্ষিত। হয়তো তাই তাদের পরিবারে এমন বোধ রয়েছে। পিয়ার বাবাও গর্ব করে মে’য়ের এমন উজ্জল ক্যারিয়ারে।

অনন্য মামুনদের তাই টেনশনের কোন কারণ নেই। আজ বোনের বিয়েতে যদি কেউ কিছু বলে থাকে কাল মে’য়ের বিয়েতে সমাজটা পরিবর্তনও হতে পারে।

About tanvir

Check Also

ভাড়ায় মিলছে স্বা’মী, সুঠাম তরুণদের নিয়ে চলছে রমরমা ব্যবসা

একটি বেস’রকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন শাহিন হোসেন (ছদ্মনাম)। কিন্তু যা বেতন পান, তা দিয়ে সংসার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *