Breaking News

ভোলায় মার্বেল পাথরে নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক দৃষ্টিনন্দন মসজিদ

দক্ষিণাঞ্চলের দ্বীপ জে’লা ভোলায় নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক সৌন্দর্যমণ্ডিত নয়নজুড়ানো স্থাপনা নিজাম-হাসিনা মসজিদ। এটি নিজাম-হাসিনা ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে নির্মিত।

ভোলা শহরের উকিল পাড়ায় প্রায় দেড় একর জমির ও’পর এ মসজিদটি নির্মাণ করা হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ শুক্রবার জুমআর নামাজ আদা’য়ের মাধ্যমে এ মসজিদটির শুভ উদ্বোধ’ন করা হয়।

নিজাম-হাসিনা ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় মার্বেল পাথরসহ বিভিন্ন দামি পাথর ও আধুনিক স্থাপত্যশৈলীর কারুকার্জ দ্বারা নির্মিত দুই তলা বিশিষ্ট এ মসজিদে রয়েছে না’রী ও পুরু’ষদের জন্য আলাদা অজুখানা এবং নামাজের স্থান।

২০১০ সালের জুন মাস থেকে এ মসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। প্রায় ৫২ হাজার শ্র’মিক মসজিদ নির্মাণের কাজে অংশ গ্রহণ করেছেন। আর্কিটেক্ট ফোরামের ডিজাইনার কামরুজ্জামান লিটন মসজিদটির দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন করেন।

মসজিদটির মিনারের উচ্চতা ১২০ ফুট এবং ৬০ ফুট উচ্চতার গম্ভুজও রয়েছে এ মসজিদে। মসজিদভিত্তিক লাইব্রেরি ও হিফজখানার পাশাপাশি সৌন্দর্য বৃ’দ্ধিতে ক্যালিগ্রাফি সমৃদ্ধ ডিজাইন ও ফোয়ারাসহ চারপাশে সাজানো গুছানো ফুলের বাগান রযেছে।

যা মসজিদের সৌন্দর্যকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে।এক স’ঙ্গে দুই হাজার মুসল্লি ধারণ ক্ষ’মতা সম্পন্ন এ মসজিদে এসি ও আধুনিক অজুখানা ছাড়াও সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎ সুবিধা প্রদানে জেনারেটর ব্যবস্থা রয়েছে।

সুন্দর টাইলস সমৃদ্ধ ফ্লোরের জন্য রয়েছে সুন্দর কার্পেটের ব্যবস্থা। উল্লেখ্য যে, নিজাম-হাসিনা ফাউন্ডেশনের আওতায় এ পর্যন্ত যে সব সমাজসেবামূ’লক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে, তন্মধ্যে, ১৫টি মসজিদ নির্মাণ,

এতিমখানা, চক্ষু হাসপাতাল, বৃ’দ্ধাশ্রম ও একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হয়েছে। নিঃস’ন্দে’হে এটি নিজাম-হাসিনা ফাউন্ডেশনের প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

About tanvir

Check Also

ভাতে রয়েছে স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত জরুরি পুষ্টিগুণ

ভাত খেতে বা’ধা, এ নি’ষেধ যেন মানবার নয়! মেদ, ভুঁড়ি যতই বাড়ুক, এক বেলা ভাত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *