Breaking News

এইচএসসি পাসেই চক্ষু বিশেষজ্ঞ, ১৩ বছর ধরে করছেন অপারেশন! বিস্তারিত ভিতরে

এমবিবিএস ডিগ্রি নেই, পাস করেছেন মাত্র এইচএসসি। তবুও ডাক্তার পদবি ব্যবহার করে দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে দিচ্ছেন চিকিৎসা সেবা। করেছেন চোখের মতো স্পর্শকাতর অপারেশন।

এমনই এক ভুয়া চক্ষু বিশেষজ্ঞের সন্ধান মিলেছে নাটোরের বাগাতিপাড়ায়।
শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) র‌্যা’বের অ’ভিযানে উপজে’লার দয়ারামপুর বাজার থেকে আশরাফুল ইসলাম (৬০) নামের ভুয়া ওই চিকিৎসককে আ’টকের পর কা’রাদ’ণ্ড দিয়েছেন র‌্যা’বের ভ্রাম্যমাণ আ’দালত।

র‌্যা’ব ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আশরাফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে বাগাতিপাড়া উপজে’লার দয়রামপুর বাজারে রো’গী দেখেন। এইচএসসি পাস করে তিনি ডাক্তার পদবি ব্যবহার করে সেখানে মানুষের চোখের চিকিৎসা দেন। দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে ওই বাজারে তিনি এ কাজটি করছেন।

বাজারের ‘কেয়া চশমা ঘর’ নামের একটি দোকানে বসে তিনি এই ভুয়া ডাক্তারি করে আসছিলেন। সেখানে সাইনবোর্ডে তিনি নামের আগে ডা. পদবি ব্যবহার করেন এবং নিজেকে নাটোর জে’লার গুরুদাসপুর চক্ষু হাসপাতালের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও ই’নচার্জ হিসেবে উল্লেখ করেন।

বি’ষয়টি র‌্যা’বের নজরে এলে শুক্রবার র‌্যা’ব-৫ এর সিপিসি-২ এর এএসপি মাসুদ পারভেজের নেতৃত্বে ওই বাজারে এক অ’ভিযান পরিচালনা করেন। সেখানে কেয়া চশমা ঘর থেকে আশরাফুল ইসলামকে আ’টক করা হয়।

একই সাথে কেয়া চশমা ঘর এর সত্ত্বাধিকারী আক্কাস আলীকেও আ’টক করে র‌্যা’ব। আ’টকের পর তাদেরকে সেখানে পরিচালিত র‌্যা’বের এক ভ্রাম্যমাণ আ’দালতে হাজির করা হয়।

সেখানে এমবিবিএস না হয়েও ডাক্তার পদবি ব্যবহার এবং ১৩ বছর ধরে ব্যবস্থাপত্রসহ চোখের চিকিৎসা দেওয়ার দায়ে আশরাফুল ইসলামকে দুই বছরের বিনাশ্রম কা’রাদ’ণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা অর্থদ’ণ্ড অনাদায়ে আরো তিন মাসের বিনাশ্রম কা’রাদ’ণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আ’দালত।

এছাড়া এমবিবিএস ডিগ্রিধারী না হওয়ার বি’ষয়টি জেনেও দোকানের বিক্রি ও ব্যবস্থাপনার স্বার্থে ভুয়া চিকিৎককে দোকানে বসিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার সুযোগ করে দেওয়ার অ’পরাধে কেয়া চশমা ঘরের সত্ত্বাধিকারী আক্কাস আলীকে ৭৫ হাজার টাকা অর্থদ’ণ্ডঅনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কা’রাদ’ণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আ’দালত।তবে আশরাফুল ইসলাম সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছেন,

তিনি এইচএসসি পাসের পর এক বছরের ডিপ্লোমা কোর্স সম্পন্ন করেছেন।

ভ্রাম্যমাণ আ’দালতের নির্বাহী ম্যা’জিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান বলেন, মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন-২০১০ অনুযায়ী ভুয়া ডাক্তার আশরাফুল ইসলামকে এবং ভোক্তা অধিকার আইন-২০০৯ অনুযায়ী চশমার দোকান মালিককে সাজা দেওয়া হয়েছে।

About tanvir

Check Also

ভাতে রয়েছে স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত জরুরি পুষ্টিগুণ

ভাত খেতে বা’ধা, এ নি’ষেধ যেন মানবার নয়! মেদ, ভুঁড়ি যতই বাড়ুক, এক বেলা ভাত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *