সালিশে যুবকের পু’রুষাঙ্গে ইট বেঁ’ধে ঘোরান চেয়ারম্যান

রাজবাড়ীর কালুখালী উপজে’লার সাওরাইল ইউনিয়নে গ্রাম্য সালিশে মধ্যযুগীয় কায়দায় রাশেদুল শেখ নামের এক যুবককে নি’র্যাতনের অভিযোগে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম আলী ও তার এক সহযোগীকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ।

রবিবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে রাশেদুলের ও’পর ব’র্বর নি’র্যাতন চা’লানো হয়। পরে যুবকের বাবা ইমান আলী শেখ বা’দী হয়ে কালুখালী থানায় মা’মলা করেন। মা’মলায় রাতেই কালুখালী থানা পু’লিশ ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রে’ফতার করে।

অ’ভিযুক্ত মো. শহিদুল ইসলাম আলী সাওরাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান। গ্রে’ফতার সহযোগীর নাম রায়হান।

এলাকাবাসী ও পু’লিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার বিকালে চর পাতুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শাওরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম আলীর নেতৃত্বে একটি গ্রাম্য সালিশের আয়োজন করা হয়।

সালিশে একটি না’রীঘটিত ঘ’টনাকে কেন্দ্র করে রাশেদুলকে প্রকাশ্যে ১০০ জুতাপেটা ও জরিমানা করা হয়। পরে ইউপি চেয়ারম্যান ক্ষি’প্ত হয়ে ওই যুবকের পু’রুষাঙ্গে ইট বেঁ’ধে বিদ্যালয় মাঠ ঘুরিয়ে নিয়ে বেড়ান। এতে ওই যুবকের পু’রুষাঙ্গ থেকে র’ক্তক্ষরণ শুরু হলে গ্রাম্য এক চিকিৎসক দিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

পরে ঘ’টনাটি ধা.মাচা’পা দিতে রাশেদুলকে তার নিজ বাড়িতে অ’বরুদ্ধ করে রাখার পাশাপাশি হু’মকি দেয়া হয়। চিকিৎসা নিতে যেন বাইরে যেতে না পারেন সেজন্য চেয়ারম্যানের নিজস্ব লোকজন দিয়ে পাহারার ব্যবস্থা করা হয়।

সে সময় কেউ ৯৯৯-এ ফোন করে বি’ষয়টি থানা পু’লিশকে অবহিত করে। পরে কালুখালী থানা পু’লিশ নি’র্যাতিত ওই যুবককে উ’দ্ধার করে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করে।

এর আগেও অনেকে চেয়ারম্যানের নি’র্যাতনের শি’কার হয়েছেন বলে জানা গেছে।

কালুখালী থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্ম’দ মাসুদুর রহমান জানান, জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ সংবাদ পেয়ে রাশেদুলকে উ’দ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মা’মলার পরিপ্রেক্ষিতে সাওরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম আলীসহ দুজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে।

About tanvir

Check Also

ভাড়ায় মিলছে স্বা’মী, সুঠাম তরুণদের নিয়ে চলছে রমরমা ব্যবসা

একটি বেস’রকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন শাহিন হোসেন (ছদ্মনাম)। কিন্তু যা বেতন পান, তা দিয়ে সংসার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *