Breaking News

এবার মামুনুল হকের সিলেট সফর নিয়ে উ’ত্তেজনা

সিলেট- জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য অপসারণের হু’মকিদাতা হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাস’চিব মুহাম্ম’দ মামুনুল হকের সিলেট আগমনকে কেন্দ্র করে সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজে’লায় উ’ত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

বি’তর্কি’ত এই হেফাজত নেতা আগামী ২৫ ডিসেম্বর উপজে’লার জামিয়া দ্বীনিয়া আসআদুল উলুম রামধা মাদ্রাসার ৭১তম বার্ষিক জলসায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জানিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণকে কেন্দ্র করে আ’ক্রমণাত্মক ভাষায় বক্তৃতা দেওয়ার পর এ নিয়ে মামুনুল হকের বি’রুদ্ধে বাংলাদেশ মুক্তিযু’দ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠনের রাষ্ট্রদ্রোহিতার মা’মলার আবেদন আ’দালতে উপস্থাপিত হয়েছে।

গত ১৭ ডিসেম্বর হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমিরের মৃ’ত্যুকে হ’ত্যা দাবি করে মামুনুল হকসহ ৩৬ জনের বি’রুদ্ধে চট্টগ্রাম আ’দালতে মা’মলার আবেদন করেছেন আহম’দ শফীর শ্যালক মোহাম্ম’দ মহিউদ্দিন। উভ’য় ঘ’টনায় পু’লিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) ত’দন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আ’দালত।

আলীনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির বলেন, আমি মাদ্রাসার সুরা আমেলার সদস্য। তবে সর্বশেষ বৈঠকে উপস্থিত ছিলাম না। মামুনুল হককে মাদ্রাসার মাহফিলে নিয়ে আসার বি’ষয়ে আমরা দলীয় একটি বৈঠকে আলোচনা করেছি, সেখানে আমরা নীতিগতভাবে সমালোচিত এই নেতাকে এলাকায় না আনার ব্যাপারে একমত হয়েছি।

এদিকে মামুনুল হক মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের স’ঙ্গে সর্বশেষ আলোচনার সময় প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষে আসবেন বলে জানিয়েছেন।

মাদ্রাসার মুহতামিম ইউসুফ খাদিমানী বলেন, এই মাহফিলের জন্য দুই বছর আগে ওনার সম্মতি নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু এখন পরিস্থিতি অন্যরকম হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে ওনার (মামুনুল হক) স’ঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে, তিনি স্ব’রা’ষ্ট্রমন্ত্রীর কথা জানিয়ে বলেছেন যে স্থানীয় প্রশাসন থেকে আনুষ্ঠানিক অনুমতি পেলে তবে তিনি আসবেন।

আমরা স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের স’ঙ্গে আলোচনা করে প্রশাসনের কাছে অনুমতির জন্য যাব। অনুমতি পেলে মাওলানা মামুনুল আসবেন। না হলে আসবেন না।

আলীনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ মামুন বলেন, মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ মাহফিলের দাওয়াত দিলে বি’ষয়টি জানতে পারি। আগামী সোমবার মাদ্রাসার মজলিসে সুরার বৈঠক আছে, সেখানে বি’ষয়টি নিয়ে আলোচনা করব, যাতে কোনো অবস্থায় এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না হয়।

এ ব্যাপারে বিয়ানীবাজার উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী জানান, তারা এখনো আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়নি। তবে, স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও রাজনৈতিক নেতাদের স’ঙ্গে আলাপ হয়েছে।

তারা জানিয়েছেন, মাদ্রাসার মাহফিলে মামুনুল হক যাতে না আসেন, সেটা তারা দেখছেন। আর অনুমতি ছাড়া যদি মামুনুল হক আসেন, তাহলে সেটা আইনগতভাবে আমরা প্রতিহত করব।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১০ থেকে ১২ ডিসেম্বর সিলেটের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি একটি মাহফিলের আয়োজন করে। যাতে চ’রমোনাই পীর সৈয়দ মো. রেজাউল করীমের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

কিন্তু, চ’রমোনাই পীরের বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবি’রোধী বক্তব্যকে কেন্দ্র করে ৬ ডিসেম্বর ছাত্রলীগ কর্মীরা মাহফিলের একটি ব্যানারে আ’গুন দিয়ে মাহফিল প্রতিহতের ঘোষণা দেয়। সেদিনই প্রশাসন ওই মাহফিলের অনুমতি বাতিল করে।

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *