Breaking News

যে কারণে দু’ধ কলা দিয়ে ভাত খাবেন না!

দু’ধ ও কলা অনেকেরই প্রিয় খাবার। কলা দিয়ে অনেকেই দু’ধ-ভাত মেখে খান। তবে সাম্প্রতিক এক গবে’ষণা বলছে, দু’ধ ও কলা একস’ঙ্গে খাওয়া স্বাস্থ্যকর নয়।

দু’ধ ও কলা আলাদা আলাদাভাবে পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ খাবার। কিন্তু একস’ঙ্গে খেলে তা বরং খা’রাপই হতে পারে। জেনে নিন দু’ধ কলা একস’ঙ্গে খেলে কী হয়-

দু’ধ ও কলা আলাদা দুই ধরনের দুটি খাবার। দু’ধে প্রোটিন, ভিটামিন বি-১২ এবং রিবোফ্লেভিন ও ক্যালসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থ আছে।

প্রতি ১০০ গ্রাম দু’ধ ৪২ ক্যালরি বহন করে। যদিও ‘সুষম খাদ্য দু’ধ’ কথাটি এখন যথার্থ মনে হয় না কারণ দু’ধে ভিটামিন সি, হজম আঁশ নেই। সেই স’ঙ্গে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণও কম।

অন্যদিকে, কলায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-৬, ম্যাঙ্গানিজ, ভিটামিন সি, পাচক আঁশ, পটাশিয়াম এবং বায়োটিন আছে।

প্রতি ১০০ গ্রাম কলায় ৮৯ ক্যালরি থাকে। কলা আমাদের পাকস্থলিকে ভারী করে রাখে এবং আমাদের অনেকক্ষণ ‘পেটভরা’ অনুভূতি দেয়। প্রচুর কার্বোহাইড্রেটসমৃদ্ধ কলা শা’রীরিক ব্যায়ামের আগে ও পরে গ্রহণে উৎসাহিত করা হয়ে থাকে।

অনেকেই মনে করেন কলা ও দু’ধ একস’ঙ্গে খাওয়া ভালো। কিন্তু গবে’ষণা বলছে এমনটা ঠিক না। গবে’ষণা মতে, দু’ধ ও কলা একস’ঙ্গে খেলে তা যে শুধু আমাদের হজম প্রক্রিয়ায় সমস্যা করে তাই নয়।

তা আমাদের সাইনাসের শোষণকেও ব্যাহত করে। এটা আমাদের সাইনাসের সমস্যা সৃষ্টি করে এবং এলার্জির কারণও হতে পারে।

তাই অনেকে দু’ধ ও কলা একস’ঙ্গে খাওয়া অনেকেই সমর্থন করলেও এমন সেবনে আমাদের বমি বমি ভাব আনতে পারে। এমনকি তা আমাশয়ের কারণও হতে পারে। আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রেও দু’ধ ও কলা একত্রে খাওয়ার নেতিবাচক প্রভাবের কথা বলা হয়েছে।

দু’ধ ও কলা একঙ্গে খেলে আমাদের দে’হে টক্সিফিকেশন হতে পারে যা দেশের স্বাভাবিক কাজে বা’ধা দেয়।

সেই স’ঙ্গে দু’ধ ও কলা একস’ঙ্গে খেলে তা আমাদের মধ্যে গু’রুতর হতাশা তৈরি করতে পারে এবং আমাদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষ’মতা কমিয়ে দিতে পারে।

তাই গবেষকরা বলছেন দু’ধ ও কলা একস’ঙ্গে খাওয়া যাবে না। যদি আপনি কোনো শা’রীরিক অনুশীলনের আগে বা পরে দু’ধ-কলা খেতে চান তাহলে দু’ধ খাবার অন্তত ২০মিনিট পর কলা খেতে পারেন। আর যদি দুগ্ধজাত কোন খাবারের স’ঙ্গেই কলা খেতে চান তবে দইয়ের স’ঙ্গে খেতে পারেন।

About tanvir

Check Also

১০ বছর প্রেমের পর বিয়ে, নববধূকে রাস্তায় রেখে পালালেন স্বা’মী

১০ বছর প্রেমের পর সালিস বৈঠকে বিয়ে হয় ইতি আক্তারের (ছদ্মনাম)। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রকৃতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *