Breaking News

কি’শোরীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে হঠাৎ জমা ১০ কোটি টাকা

রীতিমতো অভাবী বাড়ির এক কি’শোরীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে হঠাৎ করে জমা পড়লো প্রায় ১০ কোটি টাকা।

এটা জানার পর ‘হতভম্ব ওই কি’শোরী এবং তার পরিবার। ঘাবড়ে গিয়ে তারা পু’লিশের দ্বারস্থ হন। ত’দন্ত শুরু করেছে পু’লিশ। আশ্চর্য ঘ’টনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বালিয়া জে’লার রুকুরপুরা গ্রামে।

জানা যাচ্ছে, সরোজ নামে ১৬ বছরের ওই কি’শোরী গত দু’বছর আগে একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলিয়েছিল বাঁশডি’হতে এলাহাবাদ ব্যা’ঙ্কে।

আর সম্প্রতি ওই অ্যাকাউন্টেই জমা পড়েছে ৯ কোটি ৯৯ লাখ ৪ হাজার ৭৩৬ টাকা। জানতে পেরেই সে আকাশ থেকে পড়ে।

গত সোমবার ওই সে তার বাবা মাকে স’ঙ্গে নিয়ে ব্যা’ঙ্কের শাখায় যায়। ব্যাঙ্ক ক’র্তৃপক্ষ এবং পু’লিশকে এমন ঘ’টনার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানায়। ওই নিরক্ষর কি’শোরীর বাড়িতে মা’রাত্মক অভাব। তার বাবা আম’দাবাদের একটি গ্যারেজে কাজ করেন।

আর ব্যাঙ্ক ক’র্তৃপক্ষকে এমন ঘ’টনা জানানোর পর তাদের বক্তব্য, ওই অ্যাকাউন্ট থেকে এর আগেও একাধিকবার মো’টা অ’ঙ্কের টাকা লেনদেন হয়েছে।

তবে এই লেনদেনের বি’ষয়ে কোনও কিছু জানা ছিল না সরোজের। আর ব্যাঙ্ক ক’র্তৃপক্ষ সরোজের সমস্ত বক্তব্য শোনার পর আপাতত ওই অ্যাকাউন্ট থেকে লেনদেন বন্ধ করে দিয়েছে।

কিন্তু কিভাবে ওই অ্যাকাউন্টে এত টাকা এল এবং এর আগেও কারা’ ওই অ্যাকাউন্ট থেকে লেনদেন করত, তা নিয়ে রীতিমতো সন্দে’হ তৈরি হয়েছে।

এ বি’ষয়ে সরোজ জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে কানপুরের দে’হাত জে’লার নীলেশ নামে এক যুবক তার থেকে আধার কার্ড, ছবি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর ইত্যাদি নিয়েছিলেন, এমনকি ওই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের এটিএম কার্ড ও পিন রয়েছে ওই যুবকের কাছে।

পু’লিশ এ ঘ’টনা জানার পরই ওই যুবকের ও’পর সন্দে’হ তৈরি হয়। যদিও তার স’ঙ্গে ফোনে পু’লিশ যোগাযোগ করতে পারেনি, তার ফোন বন্ধ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাঁশডিহ থানার আইসি রাকেশ কুমা’র সিং জানিয়েছেন,

ওই কি’শোরীর অ্যাকাউন্টে কিভাবে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ জমা হল তা খতিয়ে দেখবে ব্যাঙ্ক ক’র্তৃপক্ষ। পূর্ণা’ঙ্গ ত’দন্তের পর দোষীদের বিরু’দ্ধে ক’ঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

About tanvir

Check Also

১০ বছর প্রেমের পর বিয়ে, নববধূকে রাস্তায় রেখে পালালেন স্বা’মী

১০ বছর প্রেমের পর সালিস বৈঠকে বিয়ে হয় ইতি আক্তারের (ছদ্মনাম)। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রকৃতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *