Breaking News

টি-টেন খেলার জন্য ৬ জন্যের মধ্যে ২ জনকে অনুমতি দিলো বিসিবি

আগামী ২৮ জানুয়ারি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টি-টেন ক্রিকেট লিগের চতুর্থ আসর। এই টুর্নামেন্টে প্লেয়ার্স ড্রাফটে বাংলাদেশ থেকে দল পেয়েছেন ৬ জন ক্রিকেটার।

তবে আপাতত ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটারকে এনওসি না দেওয়ার পক্ষে বিসিবি।

শেষ পর্যন্ত এমনটা বাস্তবে হলে, টি-টেন লিগে দল পাওয়ার পরও আসরে খেলা হচ্ছে না কোন টাইগার ক্রিকেটারের।

এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সি’দ্ধান্ত না আসলেও বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, ক’রোনাকালে বিদেশি লিগ খেলার ব্যাপারে ক্রিকেটারদের নিরুৎসাহিত করছেন তারা।

তবে শুধু টি টেন ক্রিকেট লীগে নয় ২০২১ সালে অন্যদেশের কোনো লিগেই নাকি টাইগার ক্রিকেটারদের দেওয়া হবে না কোন অনাপত্তিপত্র। এর কারণ ব্যস্ত শিডিউল আর ক’রোনাকাল। থাকবে আ’ক্রান্ত হওয়ার আর সংক্রমিত করার ঝুঁ’কিও।

২০২১ সালে কমপক্ষে ৯ টি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। শুধু তাই নয় রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপ।

পুরো বছর জুড়ে ব্যস্ত সময় পার করবে তারা। যার শুরু হবে আগামী মাস থেকেই।আগামী ২০ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজ।

সেই সিরিজের জন্য ৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ক্রিকেটারদের অনুশীলন ক্যাম্প। টি-টেনে ডাক পাওয়া ৬ জনের ৪ জন অর্থাৎ মোসাদ্দেক-তাসকিন-আফিফ আর মাহেদী বেশ ভালোভাবেই আছেন বিসিবির পরিকল্পনায়।

তাইতো তাদের নিয়ে কোন ঝুঁ’কি নিতে নারাজ দেশের ক্রিকে’টের অভিভাবক সংস্থাটি। আপাতত দৃষ্টি ক্যারিবিয়ান সফরেই।

সেক্ষেত্রে প্রশ্ন থাকছে, জাতীয় দলে আপাতত পরিকল্পনার বাইরে থাকা দুই ক্রিকেটার নাসির আর মোক্তারের ব্যাপারে কি সি’দ্ধান্ত নিচ্ছে বোর্ড? তাদেরও কি দেয়া হচ্ছে না এনওসি?

গুঞ্জন উঠেছে এই দুইজনকে খেলতে দিতে অনুমতি দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। দুই-একদিনের মধ্যে চূড়ান্ত সি’দ্ধান্ত জানাবে বিসিবি এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছেন, “দেশের বাইরে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে ক্রিকেটারদের অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রে ইন প্রিন্সিপাল আমরা দুটি ব্যাপার অনুসরণ করি।

প্রথমত, দুটির বেশি লিগে কাউকে অনুমতি না দেওয়া এবং দ্বিতীয়ত, ওই সময় জাতীয় দলের কমিটমেন্ট আছে কিনা। এই ব্যাপারগু’লি এখন আমাদের ভাবতে হবে।”

“ওই সময় আমাদের এখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সফর আছে। আবার ন্যাশনাল ফোল্ডের বাইরের ক্রিকেটারও আছে টি-টেনে।

আচমকা তাই আমি কিছু বলতে পারছি না বা সি’দ্ধান্ত নিতে পারছি না। সংশ্লিষ্ট সবার স’ঙ্গে কথা বলে আমরা দু-একদিনের মধ্যে সি’দ্ধান্ত চূড়ান্ত করে ফেলব।”

এই টুর্নামেন্টে প্লেয়ার্স ড্রাফটে বাংলাদেশ থেকে দল পেয়েছেন ৬ জন ক্রিকেটার। তারা হলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাসির হোসেন , শেখ মেহেদী হাসান এবং মুক্তার আলী।

প্লেয়ার্স ড্রাফটে সবার আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল পেয়েছে অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

তাকে দলে নিয়েছে টুর্নামেন্টির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মা’রাঠা অ্যারাবিয়ান্স। এই দলের হয়ে খেলবেন মুক্তার আলী।

শুধু তাই নয় এই দলে বাংলাদেশ থেকে আরও খেলবেন তাসকিন আহমেদ। মোসাদ্দেক, মুক্তার এবং তাসকিনের সাথে এই দলে রয়েছেন শোয়েব মালিক, লরি ইভান্স, মোহাম্ম’দ হাফিজের মতো তারকা ক্রিকেটার।

প্লেয়ার্স ড্রাফটে তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বাংলাদেশ থেকে দল পেয়েছেন আরেক তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন।

বাংলাদেশের উদীয়মান অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন ধ্রুবকে দলে নিয়েছে বাংলা টাইগার্স। বাংলাদেশের মালিকানাধীন এই দলটি তাদের দলে নিয়েছে না আরো একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটারকে।

বাংলাদেশ দলের আরেক তরুণ অলরাউন্ডার শেখ মেহেদী হাসানকে দলে নিয়েছে বাংলা টাইগার্স। বাংলা টাইগার্সের আইকন ক্রিকেটার শ্রীলংকার ফাস্ট বোলার ইসুরু উদানা। দলে আরো আছেন আন্দ্রে ফ্লেচার, কায়েস আহমেদ, চিরাগ সুরি, জনসন চার্লস।

এছাড়া ড্রাফট থেকে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার নাসির হোসেনকে দলে ভিড়িয়েছে পুনে ডেভিলস।

নাসিরকে ‘সি’ ক্যাটাগরি থেকে দলে নিয়েছেন ভারতীয় মালিকানাধীন দলটি। দলটির আইকন ক্রিকেটার হিসেবে আছেন শ্রীলঙ্কার অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা।

About tanvir

Check Also

বিকাশ অ্যাপ এ আনুন লোন আইকন, যেভাবে মিলবে ঋ’ণ

রিকশা মেরামত করতে হঠাৎ এক’জন রিকশা’চালকের তাৎক্ষণিক দেড় হাজার টাকা ঋ’ণ প্রয়োজন হলো। আর সেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *