Breaking News

সম্প’র্ক বাঁচাতে প্রে’মিককে সহকর্মীদের গোসলের ভিডিও পাঠাত প্রে’মিকা

ভারতের বেঙ্গালুরুরের এক নার্সের বি’রুদ্ধে প্রে’মিককে অন্য না’রীদের গোসলের ভিডিও পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে।

মূ’লত প্রে’মিকের স’ঙ্গে সম্প’র্ক বাঁচাতেই এই না’রী তার সহকর্মীদের গোসল করার ভিডিও প্রে’মিককে পাঠাত। অ’ভিযুক্তকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে।

পু’লিশের জালে ধরা পড়েছে ২৪ বছরের প্রে’মিকও। জেরার মুখে দু’জনেই অ’পরাধ স্বীকার করে নিয়েছে।

জানা গেছে, আ’টক নার্সের নাম অশ্বিনী। বেঙ্গালুরুর এক নামী হাসপাতালের আপৎকালীন বিভাগে কাজ করত সে। এর আগে দু’বার বিয়ে হয়েছিল অশ্বিনীর। কিন্তু তা বেশিদিন টেকেনি।

পু’লিশকে অশ্বিনী জানিয়েছে, ভু’ল নম্বরে ফোন করে ফে’লে ২৪ বছরের প্রভুর স’ঙ্গে তার আলাপ হয়। পেশায় নামী হোটেলের শেফ প্রভু। অল্পদিনেই বন্ধুত্ব প্রেমের সম্প’র্কে পরিণত হয়।

প্রভু যখন অশ্বিনীর আগের বিয়ের কথা জানতে পারে তাকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। সম্প’র্ক বাঁচাতে সমস্ত কিছু করার আশ্বাস দেয় অশ্বিনী। এই আশ্বাসেরই সুযোগ নেয় ২৪ বছরের যুবক।

প্রথমে সে অশ্বিনী তার ন’গ্ন, অশালীন ভিডিও পাঠাত। পরে অশ্বিনী তার না’রী সহকর্মীদের ভিডিও পাঠায়।

সম্প’র্ক বাঁচাতে হাসপাতালের বা’থরুমের সিলিংয়ে মোবাইল ফোন লুকিয়ে রাখত অশ্বিনী। না’রী কর্মীরা সেখানে গোসল করতেন। সেই ছবি ও ভিডিও প্রে’মিককে সরবরাহ করত।

পু’লিশ সূত্রে জানা গেছে, এই ছবি ও ভিডিও অনলাইনেও বিক্রি করা হত। হাসপাতালের এক কর্মী সিলিংয়ে অশ্বিনীর ফোনটি দেখতে পান। স’ঙ্গে স’ঙ্গে তিনি কর্তৃপক্ষকে বি’ষয়টি জানান।

অ’নৈতিক কাজ ফাঁ’স হয়ে গেলে অতিরিক্ত ঘুমের ও’ষুধ খেয়ে আত্মহ’ত্যা করার চেষ্টা করে অশ্বিনী। তাকে সুস্থ করে পু’লিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

ভেলোর থেকে অশ্বিনীর প্রে’মিক প্রভুকে গ্রেফতা করা হয়েছে। ঘ’টনার ত’দন্তের আশ্বাস দিয়েছে বেঙ্গালুরু পু’লিশ।

কোনো কোনো সাইটে এই ছবি ও ভিডিওগু’লি বিক্রি করা হয়েছে। প্রভুর স’ঙ্গে এই কর্মকাণ্ডে অন্য কেউ জড়িত রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

About tanvir

Check Also

১০ বছর প্রেমের পর বিয়ে, নববধূকে রাস্তায় রেখে পালালেন স্বা’মী

১০ বছর প্রেমের পর সালিস বৈঠকে বিয়ে হয় ইতি আক্তারের (ছদ্মনাম)। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রকৃতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *