Breaking News

কাজের মে’য়ের গোপঙ্গ ভে’তর থেকে পাওয়া গেল লক্ষাধিক টাকা

শুনতে হাস্যকর মনে হলেও একদম সত্যি ঘ’টনা। ঘ’টনাটি ঘটেছে দিল্লিতে। সেখানে সবাই এত কাজে ব্যাস্ত যে বাড়ির কাজ করার মত কারোর সময় নেই। তাই সেখানে সবাই বাড়ির যাবতীয় কাজের জন্য আলাদা আলাদা লোক রেখে দেয়।

কিন্তু তারা সবাই যে বিশ্বস্ত হবে এমন নয়। অবিশ্বা’সী মানুষেই ভর্তি এই দুনিয়া। কাজ করতে এসে চু’রি করে ধ’রা পড়ে একটি মে’য়ে।

দশ কুড়ি টাকা নয়, সে চু’রি করেছিলো লক্ষাধিক টাকা। বিশেষত যারা অন্যের বাড়িতে কাজ করে তারা গরীবই হয়।

কিন্তু অনেক মানুষ গরীব হলেও তারা সৎ। সৎ থাকলে তবেই তাকে বিশ্বা’স করে লোকে কাজ দেবে, কিন্তু অসৎ কাজ করলে কেউ তো নিজের বাড়িতে এরকম কাজের লোক রাখতে চাইবেনা।

যে মে’য়েটি চু’রি করেছে তার নাম সাধ’না। খুব গরীব ঘরের মে’য়ে তাই কাজ করে অন্যের বাড়ি।

মে’য়েটি মনীষা নামের একজনের বাড়িতে রান্নার লোকের কাজ করতো। সাধ’না হঠাৎ একদিন তার আলমা’রিতে রাখা টাকা খুজে পাচ্ছিলনা। তখনই তার স’ন্দে’হ হয় সাধ’নার ও’পর।

স’ঙ্গে স’ঙ্গে সে জিজ্ঞাসা করে সাধ’নাকে। সাধ’না তার মালকিনের প্রশ্নের সঠিক উত্তর না দিতে পেরে আমতা আমতা করতে থাকে। আর তখন মনীষা নিশ্চিত হয়ে যায় টাকা’টা সাধ’নাই সরিয়েছে।

তখনই সে তার ব্যাগ চেক করে, সেখানে কিছু না পেয়ে তার পড়ে থাকা জামাকাপড় চেক করে। জামাকাপড় চেক করতেই মে’য়েটির অন্তর্বাসের মধ্যে পায় এক লক্ষ টাকা,

যা তার আলমা’রির মধ্যে থেকে হা’রিয়ে গিয়েছিলো। আর তার স’ঙ্গে পায় আলমা’রির চাবি। এই ঘ’টনার পর চাঞ্চল্য ছড়ায় ঐ এলাকায়।

তারপর মনীষা ও তার বাড়ির লোক মে’য়েটিকে পু’লিশের হাতে তুলে দেয়। তারা বলে যে সাধ’নার থেকে চু’রি যাওয়া টাকা উ’দ্ধার করা গেলেও তার গায়ে হাত তোলেনি মনীষা বা তার বাড়ির কেউ।

এই প্রস’ঙ্গে মনীষা দেবী বলেছেন তারা কখনো সাধ’নাকে কাজের লোক হিসাবে দেখেনি।

মে’য়ে হিসাবেই সবসময় দেখেছে। তারা খুব ভালোবাসতো সাধ’নাকে। সে এরকম কাজ কেন করেছে তার কোন উত্তর নেই।

তবুও তার গায়ে হাত তোলেনি কেউ। তুলে দিয়েছে পু’লিশের হাতে। যা ব্যবস্থা নেওয়ার নেবে আইন। আইনের নিয়ম অনুযায়ী তার যা শা’স্তি হওয়ার তাই হবে।

About tanvir

Check Also

১০ বছর প্রেমের পর বিয়ে, নববধূকে রাস্তায় রেখে পালালেন স্বা’মী

১০ বছর প্রেমের পর সালিস বৈঠকে বিয়ে হয় ইতি আক্তারের (ছদ্মনাম)। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রকৃতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *