Breaking News

‘নাপিত স্বা’মীতো আমাকে সু’খ দিতো, বাবার কী সমস্যা’, বললেন সেই না’রী চিকিৎসক

পেশায় নাপিত এক যুবককে বিয়ে করেছেন এক না’রী চিকিৎসক। আইনি প্রক্রিয়ায় আগের স্বা’মীকে ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। নতুন সংসারে সু’খেই ছিলেন বলে জানিয়েছিলেন।

তবে গণ্ডগোল বেঁ’ধেছে তার বাবার দা’য়ের করা মা’মলায়। গ্রে’প্তার হতে হয়েছে তার স্বা’মীকে। বেধেছে বিপত্তি। সংসারের বদলে তাকে থাকতে হচ্ছে কা’রাগারে।

রংপুর নগরীর সেনপাড়ার বাসিন্দা ওই না’রী পেশায় গাইনি চিকিৎসক। ভালোবেসে পেশায় নাপিত এক যুবককে বিয়ে করার পর ২১ মাস ধরে ঢাকার মোহাম্ম’দপুরে চাঁন মিয়া হাউজিংয়ে স্বা’মী ও এক শি’শু স’ন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন।

কিন্তু ওই না’রীর বাবার করা অ’পহরণ মা’মলায় ২১ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে তাকে উ’দ্ধার এবং তার স্বা’মীকে গ্রে’প্তার করে রংপুর পু’লিশের অ’পরাধ বিভাগ (সিআইডি)।

পরদিন রংপুর নগরীর কেরানীপাড়ায় সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তাদের হাজির করা হয়।

সিআইডির পু’লিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস ওই সংবাদ সম্মেলন করেন।এই দম্পতিকে সংবাদ সম্মেলনে এভাবে হাজির করায় ক্ষো’ভ প্রকাশ করেছেন বিভিন্নজন।

শুধু নাপিত পেশার যুবককে বিয়ে কারায় সিআইডির পু’লিশ সুপার ওই সংবাদ সম্মেলন করেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়।

তবে পু’লিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস বলেন, পু’লিশ যা করছে ঠিক করেছে। উনি ভালো চিকিৎসক। যাকে তিনি বিয়ে করেছেন তিনি লেখাপড়া জানেন না। চিকিৎসকের বাবার ফুটফরমাশ খাটতেন।

চিকিৎসকেরও কাজে সাহায্য করতেন। স্বাধীনতা মানে যা ই’চ্ছা তা করা নয়। চিকিৎসকের বাবার কথা ভাবতে হবে। তিনি এতো ক’ষ্ট করে মে’য়েকে বড় করেছেন।

গতকাল রবিবার পু’লিশ সুপার মিলু বিশ্বাস জানান, গেলো বছরের মার্চে রংপুর নগরীর এক ব্যবসায়ী তার গাইনি চিকিৎসক মে’য়ে (৩৪) অ’পহৃত হয়েছে মর্মে এক তার মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানায় একটি মা’মলা করেন।

মা’মলায় অভিযোগ করেন, নগরীর আলমনগর কলোনির এক নাপিত (৩৫) তার মে’য়েকে অ’পহরণ করে নিয়ে গেছে।

এ ঘ’টনায় দীর্ঘদিন চেষ্টা করেও অ’পহৃত চিকিৎসককে উ’দ্ধার করতে পারেনি। পরে মা’মলাটি ত’দন্তের জন্য সিআইডি পু’লিশের কাছে দেওয়া হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই না’রী চিকিৎসক তার আগের স্বা’মীকে ডিভোর্স দিয়ে ওই যুবককে বিয়ে করেন। আগের স্বা’মীর ঘরের একটি ছেলে স’ন্তান এবং এই ঘরে একটি স’ন্তান রয়েছে।

এর আগেও তারা একবার পা’লিয়েছিলেন। অনেক বুঝিয়ে মে’য়েটিকে বাড়িতে আনা হলেও আবার তারা পা’লিয়ে যান।

ওই যুবক না’রী চিকিৎসকের বাবার ব্যবসায় ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করতেন।

সিআইডির পু’লিশ সুপার বলেন, ওই না’রী জানিয়েছেন নতুন বিয়ে করে তারা সু’খেই আছেন। তার বাবা তাদের নামে মিথ্যা মা’মলা দিয়েছেন।

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *