Breaking News

লকডাউনে কাজ হা’রিয়েছেন স্বা’মী, সংসার চালাতে বাসের স্টিয়ারিং হাতে ৩ স’ন্তানের মা!

– একসময় ট্যাক্সি চা’লিয়েছেন। তবে এবার করোনা লকডাউন জম্মুর পূজা দেবীকে(৩৩) করে দিয়েছে যাত্রীবাহী বাসের চালক।

জম্মুর কাঠুয়ার বাসিন্দা পূজা ৩ স’ন্তানের মা। স্বা’মী কাজ করতেন হায়দরাবাদে এক নির্মাণ সংস্থায়। সেই সংস্থা বন্ধ হয়ে যায় লকডাউনে। ফলে পরিবারের আয়ের রাস্তাও বন্ধ।

পরিস্থিতি সামাল দিতে জম্মু-কাঠুয়া রুটে যাত্রীবাহী বাসের স্টিয়ারিং ধরেছেন পূজা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি ছড়িতে পড়তেই তা ভাইরাল হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে নিজের

অ’ভিজ্ঞতার কথা জানাতে গিয়ে পূজা বলেন,’লকডাউন আমাদের সংসারের শান্তি-ঘুম সব কেড়ে নিয়েছিল। যেদিন প্রথম বাস চা’লিয়ে ৬০০ টাকা আয় করলাম সেই দিনটা আমার কাছে একেবারে অন্যরকম।

লকডাউনকে চ্যলেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলাম। যদি ডাক্তার-নার্সরা এইসময়ে কাজ করতে পারেন তাহলে আমি কেন পারব না। আমার ছোট ছেলেকে ঘরে রেখে আসতে পারি না।

তাই ওকে পাশের সিটে বসিয়ে রেখেই বাস চালাই। অতিমারীর এই সময়ে এরকম একটা কাজ পাওয়াই মুসকিল ছিল। কিন্তু একজন বাসচালক পা’লিয়ে যাওয়ায় বাসের চাবি হাতেপেয়ে যাই।

’পূজা দেবীর ছবি শেয়ার করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও উধমপুরের সাংসদ জিতেন্দ্র সিং। কাঠুয়ার বাসিন্দা হয়েও এখনও পর্যন্ত কাশ্মীর যাওয়া হয়ে ওঠেনি পূজার।

সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘স’রকার যদি আমার এই প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে তাহলে অনুরোধ, আমাকে যেন তারাএকবার কাশ্মীর যাওয়ার সুযোগ করে দেন।

আমি এতদিনেও পাটনি টপের ওদিকে যাইনি।আসলে সব সময় শুনেছি কাশ্মীর এই পৃথিবীতে একটা স্বর্গ। কিন্তু বছরে আমরা কখনওই ১৫,০০০ টাকার বেশি জমাতে পারিনি। কীভাবে কাশ্মীর যাব!’

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *