Breaking News

নামের শেষে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করায় শি’শু বক্তা রফিকুল ইসলামকে লিগ্যাল নোটিশ

ম’দিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা না করে নামের শেষে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করায় আলোচিত শি’শু বক্তা রফিকুল ইসলামকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শরীফুল হাসান খাঁন এ নোটিশ পাঠান।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ম’দিনা শাখার আমীর ও সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীর পক্ষে নোটিশ পাঠিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যুগান্তরকে বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন এ আইনজীবী।

এতে বলা হয়, আপনি নোটিশ গ্রহিতা ম’দিনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা না করে অথবা ম’দিনা মনোয়ারায় বসবাস না করা সত্ত্বে দীর্ঘদিন যাবত বেআইনিভাবে নিজের নামের স’ঙ্গে ‘মাদানী’ পদবী ব্যবহার করে আসছেন।

শুধুমাত্র মানুষকে বিভ্রান্ত করে অ’নৈতিক ফায়দা হাসিলের উদ্দেশ্যে প্র’তারণামূ’লকভাবে সত্য গো’পন করে আলেম ওলামাসহ পাঠকদের কাছে আমার মক্কেলের গ্রহণযোগ্যতাকে নিজের নামে ব্যবহার করার হীন উদ্দেশ্যে নিজের নামের সাথে ‘মাদানী’ নাম পদবী ব্যবহার করছেন। যা সম্পূর্ণভাবে অ’নৈতিক ও বেআইনি।

নোটিশে আরও বলা হয়, যেহেতু আমার মক্কেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী তার নামের স’ঙ্গে প্রায় ২৫ বছরের বেশি ‘মাদানী’ পদবী ব্যবহার করে দেশে ও বিদেশে সর্বমহলে পরিচিতি লাভ করেছেন।

আপনাকে আমার মক্কেল একাধিকবার মৌখিকভাবে এ অ’নৈতিক কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা সত্ত্বেও আপনি অনুরোধ রক্ষা না করে আপনার অ’নৈতিক ও বেআইনি কাজ চা’লিয়ে যাচ্ছেন।

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ‘মাদানী’ পদবী ব্যবহার করা থেকে বিরত না থাকলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়।এ বি’ষয়ে মাওলানা রফিকুল ইসলামের স’ঙ্গে কথা বলার জন্য একাধিকবার তার ব্যবহৃত নাম্বারে কল দেওয়া হলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

প্রস’ঙ্গত, তরুণ ওয়ায়েজ মাওলানা রফিকুল ইসলাম রাজধানীর জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। শা’রীরিক আকৃতিতে ছোট হওয়ায় শি’শু বক্তা হিসেবে পরিচিত তিনি।

মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনা জে’লার পশ্চিম বিলা’শপুর সাওতুল হেরা মাদ্রাসার পরিচালক বলে জানা গেছে। এছাড়া ২০ দলীয় জোটভূক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও রাবেতাতুল ওয়ায়েজিনের স’ঙ্গে যুক্ত তিনি।

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *