Breaking News

চুয়াডাঙ্গায় ফেসবুকে মসজিদ নিয়ে আ’পত্তিকর পোস্ট করায় সদর মানিক খান নামের এক ব্যক্তিকে আ’টক করেছে পু’লিশ।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে তাকে আ’টক করা হয়। আ’টক মানিক খান চুয়াডাঙ্গা সদর উপজে’লার দর্শনা থানাধীন তিতুদহ ইউনিয়নের গিরিশনগর বাজার পাড়ার আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।

জানা যায়, গতকাল দুপুরের দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজে’লার তিতুদহ ইউনিয়নের গিরিশনগর বাজারপাড়ার আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আলোচিত কথিত সাংবাদিক নামে পরিচিত মানিক খান তার ফেসবুক আইডি থেকে একটি ইসলামবি’রোধী বক্তব্য পোস্ট করেন।

বক্তব্যটি হলো- ‘যেখানে সেখানে মসজিদ না তৈরি করে কিছু খেলাধুলা করার মাঠ বানালে শি’শু-কিশোরদের সুস্থ মা’নসিক বিকাশ ঘটত। এত মসজিদ দিয়ে সমাজের মানবিক বিপর্যয় রোধ করা যাচ্ছে না। কারণ মসজিদসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসমূহ, খেলার মাঠ এবং সাংস্কৃতিক ক্লাব-এই সবকিছুরই প্রয়োজন আছে এই সমাজে।

কিন্তু শুধু মসজিদ বানানোর কারণে সমাজটা এত বি’ষাক্ত।’ এ ধরনের বক্তব্য পোস্ট করার পরপরই এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে। পরে তিতুদহ পু’লিশ ফাঁড়ির ই’নচার্জ এসআই শেখ রকিবুল ইসলাম বি’ষয়টি জানতে পেরে সন্ধ্যা ছয়টার দিকে গিরিশনগর বাজার থেকে তাকে আ’টক করেন। পরে ক্যাম্প পু’লিশ দর্শনা থানা পু’লিশের কাছে মানিক খানকে থানা হেফাজতে পাঠায়।

এ বি’ষয়ে তিতুদাহ পু’লিশ ফাঁড়ির ই’নচার্জ শেখ রকিবুল ইসলাম বলেন, ইসলামবি’রোধী বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করায় ধর্মের প্রতি অবমাননা হওয়ায় গ্রামের মানুষের মধ্যে বি’তর্কি’ত মনোভাব সৃষ্টি হয়।

যে কারণে তাকে আ’টক করে থানা হাজতে পাঠানো হয়েছে। দর্শনা থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান কাজল ঘ’টনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ঘ’টনায় মানিক খান নামের একজনকে আ’টক করা হয়েছে। মা’মলার প্রস্তুতি চলছে।’

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *