Breaking News

ফেসবুকের জ’ন্ম’দিনে সবাইকে বিকাশে ৩০০০ টাকা দেয়ার ত’থ্য কতটা সত্য?

ফেসবুকের জ’ন্ম’দিনে সবাইকে বিকাশে ৩০০০ টাকা দেয়ার ত’থ্য কতটা সত্য?
সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন প্রোফাইল ও গ্রুপে ‘ফেসবুকের ১০ বছর পূর্তি’ উপলক্ষে বিকাশে ৩ হাজার টাকা উপহার দেওয়ার ত’থ্য দিয়ে পোস্ট করা হচ্ছে। এতে বহু মানুষ প্র’তারিত হচ্ছে।

সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এই প্র’তারণামূ’লক পোস্ট নিয়ে ফ্যাক্ট চেক করেছে বাংলাদেশে ফেসবুকের অফিসিয়াল ফ্যাক্ট চেকিং প্রতিষ্ঠান বুম বাংলাদেশ। বুম বাংলাদেশের প্রতিবেদনটি জনসচেতনতার জন্য সময় নিউজের পাঠকের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হল;

একটি পোস্টে লেখা হয়েছে-

”আমি এই মাত্র ৩০০০ টাকা বিকাশ পেলাম। নিচে স্ক্রিনশট দেখু’ন।

অবশেষে ফেসবুকের ১০ বছর পুর্তি হলো।

ফেসবুকের ১০ বছর পুর্তি উপলক্ষে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ সবাইকে ৩০০০ (তিন হাজার) টাকা করে উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

আমি একটু আগে ৩ হাজার টাকা উপহার পেলাম আমার বিকাশ নম্বরে নিচে আমার টাকা পাওয়ার স্ক্রিনশট দিলাম।। আমার মত আপনিও খুব সহজেই ৩ হাজার টাকা উপহার নিতে পারবেন আপনার বিকাশ নম্বরে।

৩ হাজার টাকা পেতে আপনাকে নিচের লিংকে ঢুকতে হবে, লিংকে ঢুকার পর ১টি ফর্ম পাবেন, সেই ফর্ম পূরণ করে দিলেই ২-৩ মিনিটের ভে’তর আপনার বিকাশ নম্বরে ৩ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন।

অবিশ্বাস করার আগে ১ বার চেষ্টা করে তো দেখু’ন। আপনি যদি টাকা না পান আমি আপনাকে টাকা দেবো কথা দিচ্ছি।”

পোস্টের সাথে ফর্ম পূরণ করার জন্য একটি লিংকও সংযুক্ত করা আছে।

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে যে, ফেসবুকের তথাকথিত ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ৩ হাজার টাকা উপহার দেয়ার ত’থ্যটি ভূয়া ও ভিত্তিহীন।

প্রথমত: ফেসবুক ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এর ব’য়স বর্তমানে প্রায় ১৭ বছর।

দ্বিতীয়ত: ফেসবুকের পূর্তি উপলক্ষে এভাবে উপহার দেয়ার কোন ঘোষণা দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক কোন সংবাদমাধ্যমে নেই। ফেসবুক এবং বিকাশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজেও এ সংক্রান্ত কোন ঘোষণা পাওয়া যায়নি।

তৃতীয়ত: ফেসবুক পোস্টের সাথে দেয়া লিংকটিতে ক্লিক করলে দেখা যায় সেটি আরেকটি ভুইফোড় ওয়েবপেইজে প্রবেশ করায় যেখানে বিকাশের ওয়েবসাইটের নকল করে একটি পেজ বানিয়ে রাখা আছে।

পেজটিতে ফর্মের নির্দিষ্ট অংশে পরীক্ষামূ’লকভাবে কিছু ত’থ্য দিয়ে সাবমিট করা হলে আরেকটি পেজ আসে যেখানে ৩ হাজার টাকা জেতার জন্য অভিনন্দন জানানো হয় এবং একই পোস্ট ফেসবুকের ১০টি গ্রুপে অথবা কমেন্টে পোস্ট করতে বলা হয়। অর্থাৎ পুরো প্রক্রিয়াটি ভিত্তিহীন এবং প্র’তারণামূ’লক।

এতে কেউ সুনির্দিষ্ট ত’থ্য সরবরাহ করলে তা ব্যক্তির সাইবার নিরাপত্তায় হু’মকি হতে পারে।

এছাড়া বিকাশ কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটে এমন কিছু নেই।

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *