Breaking News

১০ বছর প্রেমের পর বিয়ে, নববধূকে রাস্তায় রেখে পালালেন স্বা’মী

১০ বছর প্রেমের পর সালিস বৈঠকে বিয়ে হয় ইতি আক্তারের (ছদ্মনাম)। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার কথা বলে নববধূকে রেখে পা’লিয়ে গেছেন বর জাহিদ হাসান শোভন।

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজে’লায় মঙ্গলবার (০২ মার্চ) রাতে এ ঘ’টনা ঘটে। বরের বাড়ি সাদুল্লাপুর উপজে’লার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের নলডাঙ্গা এলাকায়। স্থানীয় চাতাল ব্যবসায়ী রেজাউনুল হক লিটনের ছেলে শোভন ঢাকার বেস’রকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয়দের উপস্থিতিতে নলডাঙ্গা ট্রাকচালক সমিতির কার্যালয়ে উভ’য়ের সম্মতিতে বিয়ে হয়।

এরপর নলডাঙ্গা থেকে স্ত্রী’কে নিয়ে গাইবান্ধা শহরের বাড়িতে যাচ্ছিলেন শোভন। সাদুল্লাপুরের কালিবাড়ি মন্দিরের পাশের রাস্তায় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার কথা বলে স্ত্রী’কে বসিয়ে রেখে অটোরিকশা থেকে নেমে পা’লিয়ে যান তিনি।

ঘ’টনার পর থেকে মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায় শোভনের। নিরুপায় হয়ে রাত ১১টার দিকে সাদুল্লাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দেন নববধূ ইতি আক্তার। তার বাড়ি সদর উপজে’লার মহুরিপাড়া গ্রামে।

ইতি আক্তার বলেন, ১০ বছর ধরে শোভনের স’ঙ্গে আমার প্রেমের সম্প’র্ক। কয়েকদিন আগে শোভন বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আমার স’ঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

বিয়ের দাবিতে তার এলাকায় গেলে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়দের উপস্থিতিতে শোভন আমাকে বিয়ে করে।

সেখান থেকে বাড়ি নেওয়ার পথে সাদুল্লাপুরে পৌঁছে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার কথা বলে পা’লিয়ে যায়। প্রেমের অভিনয় করে বিয়ের পর শোভন এমন প্র’তারণা করবে বুঝতে পারিনি। এমন ঘ’টনার জন্য শোভনের কঠিন শা’স্তি চাই আমি।

লিখিত অভিযোগ পাওয়ার বি’ষয়টি স্বীকার করে সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা বলেন,

নববধূর অভিযোগ গুরুত্ব দিয়ে ত’দন্ত করছি। শোভনের অবস্থান চিহ্নিতসহ তাকে আ’টকের চেষ্টা চালাচ্ছি। তার বি’রুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

About tanvir

Check Also

ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্য’বসা,ক’চি মে’য়ে আছে

যে দেশের মানুষ শতকরা ৯০ ভাগ মু’সলমান সেখানে নাকি ভিজিটিং কার্ডের মাধ্যমে দে’হ ব্যবসা করছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *