Breaking News

রিজভীর কাছ থেকে এ ধরনের চিঠি আশা করিনি, আমি হতবাক: মেজর হাফিজ

দলীয় সি’দ্ধান্ত না মেনে ‘স’রকার পরিবর্তন আন্দোলন’র স’ঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে পাওয়া কারণ দর্শানো (শো’কজ) নোটিসের জবাব দিয়েছেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

শনিবার বেলা ১১টায় বনানীর নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে শো’কজের জবাব দেন তিনি।

লিখিত জবাবের শুরুতেই মেজর হাফিজ বলেন, ‘আমি একজন যু’দ্ধাহত, খেতাবপ্রা’প্ত মুক্তিযোদ্ধা। বিজয়ের মাসে বুদ্ধিজীবী দিবসে অসৌজন্যমূ’লক ভাষায় অসত্য অভিযোগ সম্বলিত কারণ দর্শানোর নোটিস পেয়ে হতবাক হয়েছি।

২৯ বছর ধরে বিএনপির রাজনীতির স’ঙ্গে সংশ্লিষ্ট। আমার যোগদানের তারিখ, ভাইস চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ পাওয়ার তারিখ, আমার নামের বানানসহ অনেক ভু’লই রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে দৃশ্যমান।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপিতে যোগদানের পূর্বেই আমি তিনবার সং’সদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলাম। ১৯৯১ সালে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়ে বিএনপিতে যোগদান করেছিলাম।

বিগত ২২ বছর ধরে দলের অন্যতম ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছি। দলের ভাইস চেয়ারম্যানকে একজন যুগ্ম মহাস’চিব (আদিষ্ট না হয়েও) এমন কঠিন, আ’ক্রমণাত্মক ভাষায় কৈফিয়ত তলব করায় অত্যন্ত অ’পমানিত বোধ করছি।’

‘এখানে প্রটোকল ও সৌজন্যের ব্যত্যয় ঘটেছে। ব্যক্তি রুহুল কবির রিজভী একজন ভদ্র, নিষ্ঠাবান ও ত্যাগী নেতা। তার স’ঙ্গে আমার সুসম্প’র্ক রয়েছে। তার কাছ থেকে এ ধরনের চিঠি আশা করিনি।’

তিনি বলেন, অতীতে স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবসসহ মহান মুক্তিযু’দ্ধের স’ঙ্গে জ’ড়িত স্মরণীয় দিবসগুলোতে আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হতো।

গত দেড় বছরে এ ধরনের অনুষ্ঠানেও দলের দায়িত্বপ্রা’প্ত ব্যক্তিরা আমাকে ডাকার প্রয়োজন বোধ করেননি। বোঝাই যাচ্ছে, বিএনপিতে মুক্তিযোদ্ধাদের কোনঠাসা করে রাখার জন্য একটি মহল সক্রিয় রয়েছে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আরো বলেন, বরাবরই আমি বিএনপিকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করেছি।

জে’ল থেকে বেগম জিয়া নির্দেশনা দিয়েছিলেন দলকে ঐক্যবদ্ধ রাখার। আমি সেটি করেছি। কিন্তু তারাই আমার বি’রুদ্ধে বলেন, আমি সংস্কারপন্থী, আমি ভাঙার পক্ষে। এর চাইতে দুঃখজনক, লজ্জাজনক কিছু হতে পারে না।

তিনি বলেন, আমি পদত্যাগ করছি না। আমি যে ব্যাখা দিয়েছি সেটি কিভাবে তারা নেয় তা দেখতে চাই। যদিও ভেবেছিলাম পদত্যাগ করব,

আমার সাবেক কলিগ-বন্ধুরাও বলেছিলেন পদত্যাগ করতে। কিন্তু আমার নেতাকর্মীরা আমাকে অনুরোধ করেছেন যাতে পদত্যাগ না করি। তাদের অনুরোধের কারণে আমি পদত্যাগ করলাম না।

দলের পাঠানো নোটিশের জবাবে হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বলেছেন, ‘আমার বক্তব্য স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সামনে উপস্থাপন করা হোক। বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আমাকে যদি দোষী সাব্যস্ত করা হয়,

যেকোনও শা’স্তি মাথা পেতে নিতে প্রস্তুত আছি। আমি দলীয় নেতৃত্বের প্রতি সর্বদাই শ্রদ্ধা পোষণ করি।’

About tanvir

Check Also

বাংলাদেশের প্রথম তৃতীয় লি*ঙ্গের মাদরাসায় নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু

শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস ও আ’নন্দমুখর পরিবেশে বাংলাদেশের প্রথম তৃতীয় লি*ঙ্গের মাদারাসায় নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়েছে। গতকাল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *